ভ: ১৫২ প্রাচীন বাড়ির রহস্য + পাতালবন্দি + সেই রক্তচক্ষু

Sale!

প্রাচীন বাড়ির রহস্য
প্রাচীন, পোড়ো এক বাড়ি। কী রহস্য লুকিয়ে রয়েছে ওটার চিলেকোঠায়? লোকে বলে-গুপ্তধন। বাড়িটাতে সন্দেহজনক সব চরিত্রের আবির্ভাব ঘটছে। এবং তাদের ওপর গোয়েন্দাগিরি করার জন্য তো তৈরি হয়েই রয়েছে কিশোর, মুসা আর রবিন।
পাতালবন্দি
লিযার্ড লোকটা সাধু না শয়তান? অনেকের কাছে সে দুনিয়ার ত্রাণকর্তা, আবার কারও মতে সে ক্ষমতালি্দু-পৃথিবীর দখল নিতে চায়। কোনটা ঠিক জানার জন্য তার পাতাল গবেষণাগারে হানা দিল কিশোর, মুসা, রবিন আর হিরু চাচা। দেখা যাক, কী হয়..
সেই রক্তচক্ষু
হঠাৎ করেই উধাও কিশোর! ফুঁপিয়ে উঠলেন মেরি চাচী, “হয়তো দূরে নির্জন কোনও সেতুর নিচে পড়ে আছে ওর লাশ।” মুসা আর রবিন জেনে গেল-‘রক্তচক্ষু”-র পুরনো সেই কেসের সঙ্গে চারপাশে ভয়ঙ্কর অশুভ সব মানুষ! সম্পর্ক আছে কিশোরের অন্তর্ধানের! তবে কি সমাধান হয়নি সেই কেসটা? রক্তচক্ষু-রহস্য তদন্তে নেমে জটিল ষড়যন্ত্রে জড়িয়ে গেল ওরা। সত্যিই কি খুঁজে পেল প্রিয় বন্ধু কিশোরকে? শেষে ভারতের দুর্গম এক পর্বতে অদৃশ্য-মন্দির খুঁজতে গেল তিন গোয়েন্দা। আর কি প্রাণ নিয়ে ফিরতে পারবে ওরা?

Tk. 207 Tk. 166

Weight 330 g
Dimensions 7 × 5 × 1 in
লেখক

প্রথম প্রকাশিত

পৃষ্ঠা সংখ্যা

608

In stock

Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “ভ: ১৫২ প্রাচীন বাড়ির রহস্য + পাতালবন্দি + সেই রক্তচক্ষু”

Your email address will not be published. Required fields are marked *