আন্দেজের বন্দি

Sale!

১৯৭২ সালের ১৩ই অক্টোবর। চিলির আমন্ত্রণে রাগবী খেলায় যোগ দিতে চলেছে উরুগুয়ের একদল তরুণ খেলোয়াড় ও তাদের সমর্থকবৃন্দ। আন্দেজ পর্বতমালার এক দুর্গম অঞ্চলে বিধ্বস্ত হলো প্লেন ফেয়ারচাইল্ড। এক সপ্তাহ ধরে খোজাখুঁজির পর উদ্ধারের সব প্রচেষ্টা যখন বাতিল করা হলো, তখনও প্লেনের ফিউজিলাজ অংশে বেঁচে আছে ২৬ জন যাত্রী। খাবার নেই, আগুন নেই, পানি নেই। তুষার ডিঙিয়ে বেরোবার কোন পথ নেই। সমুদ্র সমতল থেকে এক মাইল উচুতে হিম-শীতল তুষারের রাজ্যে আটকে গেছে ওরা। শেষে নিহত বন্ধু ও সহযাত্রীদের মাংস খাওয়া ছাড়া উপায় রইল না ওদের। বৈরী প্রকৃতির বিরুদ্ধে টিকে থাকার জন্য এমন আশ্চর্য সংগ্রামের ঘটনা ইতিহাসে বিরল। শেষ পর্যন্ত টিকল ১৬ জন প্রায় সোয়া দুই মাস পর বহু কষ্টে দুটি ছেলে বেরিয়ে এসে খবর দিল: না, সবাই মরেনি ওরা। চমকে উঠল গোটা বিশ্ব, আঁতকে উঠল ওদের নরমাংস ভক্ষণের বর্ণনা শুনে গল্পের চেয়েও বিস্ময়কর সত্য ঘটনা ।

Tk. 39 Tk. 29

Weight 105 g
Dimensions 7 × 5 × 0.5 in
লেখক

প্রথম প্রকাশিত

পৃষ্ঠা সংখ্যা

176

Out of stock

Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “আন্দেজের বন্দি”

Your email address will not be published. Required fields are marked *